ছেলের পড়াশোনার জন্য বিক্রি করেছিলেন বাড়ি, ছেলে আজ IPS অফিসার হয়ে সেই বাড়ি উপহার দিলেন বাবাকে

 

Advertisement

নিজের সন্তানকে মানুষের মত মানুষ করে তোলার জন্য বাবা-মায়েরা নিজেদের জীবন উৎসর্গ করে থাকেন। সন্তানদের সুখে রাখতে নিজেদের খুশির কথা ভুলে যান তারা। নিজেদের সন্তান যাতে ভালো থাকে তার জন্য সর্বস্ব প্রচেষ্টা করেন তারা। সেরকমই একটি ঘটনা উপস্থাপন করেছেন বিহারের বাসিন্দা প্রদীপ সিং।

Advertisement

পড়াশোনায় মেধাবী ছাত্র হলেও ছিলেন এক দরিদ্র পরিবারের সন্তান। অসহায় দরিদ্র পরিবারের সন্তান হওয়ার দরুন ঠিকমতো কোচিং এর মাইনেও দিতে পারতেন না প্রদীপ সিং। তার বাবা ছিলেন পেট্রোল পাম্পের এক কর্মচারী। ছেলের পড়াশোনার খরচ চালানো জন্য বাড়ি বিক্রি করতে হয়েছিল তাকে।

Advertisement

প্রদীপের পরিবারের এমন শোচনীয় অবস্থা হয়েছিল যে তাদের নুন আনতে পান্তা ফুরোতো। কিন্তু নিজের অদম্য জেদের কারণে ২০২০ সালে একজন আইপিএস অফিসার হয়ে সকলকে দেখিয়ে দিয়েছেন প্রদীপ। তিনি প্রমাণ করে দেখিয়েছেন যে দারিদ্র্যতা কখনো স্বপ্নের চেয়ে বড়ো হতে পারে না।

Advertisement

পরিবারের সন্তান হওয়ার ফলে তার এই পথ চলাটা খুব একটা মসৃণ ছিল না। গরিব পরিবারের সন্তান হওয়ার কারণে ঠিকমতো বেলা দুই মুঠো ভাত জুটতো না তাদের। কিন্তু ইউপিএসসি পরীক্ষার প্রিপারেশন নেয়ার জন্য দিল্লি যেতে হয় তাকে। তখন তার বাবা তার পড়াশোনার খরচ চালানোর জন্য বাড়ি বিক্রি করে দেয়। নিজের ছেলের পড়াশুনার যাতে কোনোরকম খামতি না হয় তার জন্য সর্ব রকম প্রচেষ্টা করে তার পরিবার।

Advertisement

বাবা মায়ের প্রচন্ড কঠোর পরিশ্রম, ভালোবাসা এবং আশীর্বাদের জেরি বর্তমানে একজন আইএএস অফিসার প্রদীপ। চাকরি পাওয়ার পর সে তার বাবাকে তাদের পুরনো বাড়িটি পুনরায় কিনে ফিরিয়ে দিয়েছেন। দারিদ্রতাকে জয় করে যেভাবে সফল হয়েছেন প্রদীপ তা সমাজে প্রশংসাযোগ্য।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button