নিজের আত্মজীবনী লিখলেন হিরো আলম, হেটার্সদের ও মন ছুয়ে গেল তার বইয়ের ১০ টি উক্তি

 

Advertisement

আসল নাম আশরাফুল আলম কিন্তু সকলে তাকে হিরো আলম বলেই চেনেন। বাংলাদেশের হিরো আলমের নাম শোনেননি এমন মানুষ খুঁজলে খুব কমই পাওয়া যাবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে নিয়ে দুটো দলে বিভক্ত। একটি তার ভক্ত অপরটি হেটার্সদের। তবে দ্বিতীয় দলের পাল্লাই বেশি ভারী। প্রায়ই নিজের কাণ্ডকারখানার দরুন তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের কাছে ট্রোলড হয়ে থাকেন।

Advertisement

নেট মাধ্যমে বরাবরই অপমানিত হন বাংলাদেশের হিরো আলম। বাংলাদেশের শিল্পী মহলে তার একটা বিশেষ কদর নেই। সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে তার চেহারা নিয়ে তাকে খোটাও দেওয়া হয়। কিন্তু সেদিকে বিশেষ একটা তোয়াক্কা করেন না তিনি।

Advertisement

কিছুদিন আগে হিরো আলম অভিযোগ করেন যে সেদেশের ইন্ডাস্ট্রিতে কিছু ক্ষমতাধারী মানুষের নির্দেশে তার সাথে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন না নামিদামি অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। যার জেরে তিনি বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগৎ বয়কট করে কলকাতার টলিউডে এসে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

Advertisement

সম্প্রতি একুশে গ্ৰন্থমেলায় প্রকাশিত হচ্ছে হিরো আলমের জীবনী ‘দৃষ্টিভঙ্গি বদলান আমরা সমাজকে বদলে দেব’। তার আত্মজীবনী তে রয়েছে বহু অনুপ্রেরণামূলক উক্তি। তবে এটি পুরোপুরিভাবে আত্মজীবনীমূলক বই নয়। বইয়ের অনেকাংশেই রয়েছে উদ্দীপনামূলক।

Advertisement

তার এই বই সম্পর্কে হিরো আলম বলেন,”আমার বইটি কেউ কিনবে নাকি না কিনবে সেটা বড় কথা না। তবে আমি সকলকে অনুরোধ করবো বইটি একবার হলেও পড়া উচিত,না কিনলেও অন্তত খুলে পড়ে দেখবেন। আমাকে নিয়ে অনেকেই হাসি ঠাট্টা করেন ট্রোল করেন কিন্তু পর্দার ওপারে হিরো আলমকে কয়জন চেনেন?”

Advertisement

তার দাবি তার এই বইয়ের কিছু উক্তি বদলে দেবে মানুষের মন। তাই সকলকে এটি একবার হলেও পড়ার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। তবে বাস্তবেও তার এই আত্মজীবনীমূলক বইয়ে দেওয়া ১০ টি উক্তি মন কেড়েছে নেটিজেনদের। তার জীবনের সমাজকল্যাণমূলক ইচ্ছেগুলোকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকে।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button