কলকাতা থেকে চিরবিদায় নিল নন-এসি মেট্রো,কলকাতায় প্রথম মেট্রো চালানোর অভিজ্ঞতা শোনালেন প্রথম চালক

 

Advertisement

 

Advertisement

আজ ২৪ শে অক্টোবর অর্থাৎ কলকাতা মেট্রোর ৩৭ তম জন্মদিন এবং আজই কলকাতা মেট্রো থেকে চিরকালের মতো আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিল মেট্রোর নন-এসি রেক। শুরুটা হয়েছিল ১৯৮৪ সালের ২৪ শে অক্টোবর যেদিন কলকাতার মাটির তলা দিয়ে ছুটেছিল নন-এসি মেট্রো। একটি সংবাদমাধ্যমকে সেদিনের যাত্রী নিয়ে প্রথমবার মেট্রো রেল চলানোর অভিজ্ঞতা জানালো তপন নাথ।

Advertisement

তপন বাবু বলেন,“আগের দিন সন্ধ্যেবেলায় জানতে পেরেছিলাম পরদিন সকালে আমায় কলকাতার প্রথম মেট্রো (Metro Railway, Kolkata ) চালাতে হবে। শুরুতে যেন নিজের কানকেই বিশ্বাস করতে পারিনি। সারারাত ভাল করে ঘুমোতে পারিনি চিন্তায়। পরদিন রিপোর্টিং ছিল সকাল সাত’টায়। ময়দান স্টেশনে। ট্রেন ছাড়ার কথা ছিল সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে।

Advertisement

সেখান থেকে এসপ্ল্যানেড (Esplanade) স্টেশনে নিয়ে আসা হল আমাকে আর অন্য মোটরম্যান সঞ্জয় শীলকে। আরপিএফ এসকর্ট করে নিয়ে গেলেন। প্রথম মেট্রোয় চড়ার জন্য সে কি হুড়োহুড়ি ভিড় সেদিন এসপ্ল্যানেড স্টেশনে। মাটির তলা দিয়ে ট্রেন ছুটবে। প্রথমদিন এসপ্ল্যানেড থেকে ভবানীপুর পর্যন্ত ছুটেছিল ট্রেন।”

Advertisement

তার কথায়,“দিনটা ছিল বুধবার। প্রথম সেই অভিজ্ঞতার সাক্ষ্মী হতে মানুষ সকাল থেকেই চলে এসেছিলেন স্টেশনে। এক টাকা দাম ছিল টিকিটের। কাগজের টিকিট। সেদিনের অভিজ্ঞতার কথা কী আর ভোলা যায়! প্রথম মেট্রো চলছে। আর তার প্রথম চালক আমিই। ভাবতেই তো এখনও গায়ের রোম খাঁড়া হয়ে যাচ্ছে।

Advertisement

প্রথম ট্রেন চলার আগে প্রায় বছর দুয়েক ট্রায়াল চলে। কিন্তু আগে থেকে জানানো হয়নি যে আমরা দু’জন ছোটাবো ওইদিন মেট্রো। যেই মুহূর্তে জানতে পারলাম বুকটা ধরাস করে উঠেছিল। টেনশন হলেও ভয় করেনি কখনও। ভোরবেলা উঠে রেডি হয়ে লেকটাউনের বাড়ি থেকে বেড়িয়ে পড়েছিলাম। তারপর এসে মোটরম্যানের ড্রেস পরে কেবিনে উঠে পড়া। এখনও সেই সব স্মৃতি চোখের মধ্যে ভাসছে।”

Advertisement

কলকাতা মেট্রোর নন-এসি রেক আর কোনদিন ছুটবে না জেনে খানিকটা মন খারাপ কলকাতা মেট্রোর প্রথম চালকের। সেই দিনগুলি মনে করে মন বিষাদ হয়ে পড়েছে তার। সেই প্রথম দিনের অভিজ্ঞতা তিনি আজীবন মনে রাখবেন বলে জানান তিনি।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button