জন্মাষ্টমীতে ভগবান কৃষ্ণের আশীর্বাদ পেতে মেনে চলুন এই নিয়মগুলি,রইলো বিস্তারিত

ভাদ্র মাসের কৃষ্ণ পক্ষের অষ্টমী তিথিতে জন্মাষ্টমী পালিত হয়। এই দিন অনেকেই গোপাল পূজা করে থাকেন। এবছর জন্মাষ্টমী পড়েছে আগস্ট মাসের মাঝামাঝি সময়ে। অতএব আর মাত্র কিছুদিন পরেই জন্মাষ্টমী। এই সময়ে ভগবান কৃষ্ণের আশীর্বাদ পেতে মেনে চলুন এই বাস্ত টিপসগুলি।

Advertisement

জেনে নিন জন্মাষ্টমীর তিথির সময়কাল। ১৮ই আগস্ট রাত ৯.২০ মিনিট থেকে শুরু হবে জন্মাষ্টমীর তিথি। এই তিথি থাকবে পরের দিন অর্থাৎ ১৯ শে আগস্ট রাত ১০.৫৯ মিনিট পর্যন্ত। শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথি ধরে পালিত হয় জন্মাষ্টমী। যেহেতু শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব রাতে হয়েছিল তাই জন্মাষ্টমী রাতেই পালন করা হয়।

Advertisement

ময়ূরের পালক শ্রীকৃষ্ণের খুব প্রিয়। শ্রীকৃষ্ণের মাথায় সর্বদা ময়ূরের পালক দেখা যায়। তাই জন্মাষ্টমীতে শ্রীকৃষ্ণের আশীর্বাদ পেতে ঘরে ময়ূরের পালক রাখুন। এতে করে ঘর থেকে নেতিবাচক শক্তি দূর হবে। শ্রীকৃষ্ণের পুজোর সময়ও এই ময়ূরের পালক ব্যবহার করতে পারেন।

Advertisement

জন্মাষ্টমীতে বাড়িতে একটি বাঁশি রাখুন। বাঁশি শ্রীকৃষ্ণের অত্যন্ত প্রিয় একটি জিনিস। জন্মাষ্টমীর সময় ঘরে বাঁশি রাখলে আপনার ঘর ধন-সম্পত্তিতে পূর্ণ হবে। গোপাল পূজোর সময়ও বাঁশি ব্যবহার করতে পারেন।

Advertisement

জন্মাষ্টমী পালনের সময় এই জিনিসগুলো শ্রীকৃষ্ণের বেদীতে রাখুন তাহলে ভগবান কৃষ্ণ সন্তুষ্ট হবেন। এই সময় শ্রীকৃষ্ণের বেদীতে তুলসী এবং শাঁখ রাখুন। এই দুটি জিনিস শ্রীকৃষ্ণের অত্যন্ত প্রিয়। তাই এই দুটি জিনিস শ্রীকৃষ্ণের বেদীতে রাখলে তিনি অত্যন্ত প্রসন্ন হবেন।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button