সাড়ে সাতি দশা থেকে মুক্তি পেতে চলেছে এই সব রাশি,তবে কিছু রাশির উপর শনির প্রকোপ রয়ে গেছে

শনিকে কর্মফল দাতা বলা হয়। বলা হয় শনি সবাইকে কর্ম অনুযায়ী ফল দান করে থাকেন। তাই শনিদেবকে সবাই প্রায় কমবেশি ভয় পেয়ে থাকেন। কথিতো আছে যে শনির কুদৃষ্টি থেকে বাঁচা যায় না। তাই কোন খারাপ কাজ করলে শনি তাকে তার কর্ম অনুযায়ী কর্মফল দিয়ে থাকেন।

Advertisement

তবে শনির সাড়ে সাতি দশা সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলে রাশির জাতক জাতিকাদের উপর। এই দশার ফলে কোনো রাশির উপর খারাপ প্রভাব পরে আবার কোনো রাশির উপর ভালো প্রভাব পড়ে। এই দশা মানুষের জীবন উলোট পালোট করে দেয়।

Advertisement

জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে এ বছর কুম্ভ এবং মকর রাশির উপর শনির সাড়ে সাতই দশা চলছে। এছাড়া কর্কট এবং বৃশ্চিক রাশির উপর শনির তইয়া প্রভাব চলছে। কুম্ভ রাশির ক্ষেত্রে শনির দ্বিতীয় চরণ চলছে। এবং মকর রাশির উপর চলছে শনির সাড়ে সাত ই দসার তৃতীয় চরণ।

Advertisement

এ বছর ১২ই জুলাই শনি মার্গী হয়েছে। এর ফলে তুলা এবং মিথুন রাশির উপর থেকে শনির তইয়া প্রভাব শেষ হয়েছে। জুলাইতে শনি নিজের রাশি পরিবর্তন করেছে। রাশি প্রবর্তন করে মকর রাশিতে প্রবেশ করেছে শনিদেব। আগামী বছর শনির সাড়েসাতি প্রভাব থেকে মুক্তি পাবে ধনু রাশি এবং তৈয়া দশা থেকে মুক্তি পাবে মিথুন রাশি।

Advertisement

শনির সাড়ে সাতি এবং তৈয়া দশা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এইসব নিয়ম গুলি পালন করুন। এই সময় হনুমানজি এবং ভগবান শিবের পূজা করুন। বাটিতে তেল নিয়ে সেই তেলে নিজের মুখ দেখুন। তারপর তেল ভর্তি বাটি শনি মন্দিরে রেখে দিন। এতে করে আপনার জীবন থেকে শনির দশা কেটে যাবে। এছাড়াও হনুমান চালিশা পাঠ করুন।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button