বউয়ের কারণে নিজেকে বদলে ফেললো উচ্ছেবাবু,মিঠাই ও সিদ্ধার্থের প্রেম দেখে বেজায় খুশি দর্শকমহল

বর্তমানে বাংলা ধারাবাহিক জগতে মূলত একপ্রকার রাজ করছে মিঠাই-সিদ্ধার্থের জুটি। জনমুখে শুধু একটিই কথা মিঠাই আর মিঠাই। হবে নাই বা না কেন যেমন মিষ্টি তার মুখ সেরকমই আদব কায়দা। এই ধারাবাহিকটি শুরু থেকেই টিআরপি লিস্টের প্রথম স্থানে নিজেদের টিকিয়ে রেখেছে। ‘মিঠাই’ কে টেক্কা দিতে ওতপ্রোতভাবে ভাবে উঠে পড়ে লেগেছে অন্যান্য ধারাবাহিকের কলা কৌশলী ও নির্মাতারা। তবে ‘মিঠাই’ এর জয় অব্যাহত রাখতে প্রতিদিন নিত্যনতুন চমক আনছে ‘মিঠাই’ এর নির্মাতারা।

Advertisement

ধারাবাহিকে কিছুদিন আগেই সকলের সম্মুখে ফিল্মি কায়দায় হাঁটু গেড়ে বসে নিজের ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন উচ্ছেবাবু। প্রথমে মিঠাই এর সাথে তার বিয়ে মেনে না নিলেও পরে নিজের স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে মিঠাই কে। এই ধারাবাহিকের মূল দুটো চরিত্র অর্থাৎ সিদ্ধার্থ ও মিঠাই এর চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেতা অদৃত রায় এবং সৌমিতৃষা কুন্ডু। ধারাবাহিকের শুরু থেকেই সকলের নজর কেড়েছে এই দুই জুটি।

Advertisement

ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী দুজনের চরিত্র একদমই আলাদা। অর্থাৎ পরস্পর পরস্পরের বিপরীত মুখী। তবে যত দিন যাচ্ছে তত সিদ্ধার্থের মধ্যে বদল আসছে। দিনদিন নিজের স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসা বাড়ছে তার। নিজেই বউয়ের যত্ন নিতে মরিয়া হয়ে উঠছেন তিনি।

Advertisement

এর মাঝেই মোদক পরিবারে ধুমধাম করে দূর্গা পূজার আয়োজন করা হয়েছে। পুজো উপলক্ষে বাড়িতে এসে উপস্থিত এক ঝাঁক অতিথি। তাদের আপ্যায়ন থেকে শুরু করে দোকান সামলানো, পূজোর সমস্ত রকম দায়িত্ব একহাতে পালন করছে মিঠাই। বাড়িতে উপস্থিত সকলের থাকার জায়গা করতে গিয়ে ইতিমধ্যেই শান্তি নষ্ট হয়ে গিয়েছে উচ্ছেবাবুর।

Advertisement

পুজোর কটা দিন উচ্ছেবাবু বাড়িতে না থাকার সিদ্ধান্ত নিলেও মিঠাই এর জন্য বাড়িতেই থেকে গিয়েছেন তিনি। দেখভাল করছেন মিঠাইয়ের। ওষুধ খাওয়ানো থেকে শুরু করে ঘুম পাড়িয়ে দেওয়া সমস্তটাই দেখছেন সিদ্ধার্থ। বউয়ের প্রতি এরম ভালোবাসা দেখে বর্তমানে বেজায় খুশি দর্শকমহল।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button