তারকাদের অভিনয় দেখতে পরিচালকের পা ধরতেন,টলিউডে নিজের স্ট্রাগলের কথা জানালেন বিন্দুমাসি

অনামিকা সাহা বাংলা চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে একজন পরিচিত মুখ। একটা সময় বহু ছবিতে তিনি সহ অভিনেত্রী হিসেবে কাজ করেছেন। তার সেই আইকনিক খল চরিত্র বিন্দু মাসি আজও দর্শকদের মনে রয়েছে। তবে বহুদিন অভিনয় থেকে দূরে সরে থাকলেও বর্তমানে তিনি ছোট পর্দার মাধ্যমে আবার অভিনয়ে কাম ব্যাক করেছেন।

Advertisement

সম্প্রতি এই অভিনেত্রী কে দেখা গেছে কলকাতায় আয়োজিত একটি মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কিত ওয়ার্কশপে। বেশ কিছুদিন ধরেই টলিপাড়ায় বেশ কয়েকজন অভিনেত্রীর আত্মহত্যার খবর উঠে আসছে। যার প্রধান কারণ হিসেবে ধরা হচ্ছে তাদের কাজ না পাওয়ার জন্য মানসিক অবসাদে ভোগার বিষয়টা। সেই কারণেই এই ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হয়েছিল।

Advertisement

এই ওয়ার্কশপে হাজির হয়েছিলেন অভিনেত্রী অনামিকা সাহা। সেখানে গিয়ে তিনি নিজের অতীত জীবনের স্ট্রাগলের কথা অপপট ভাবে তুলে ধরেন। তিনি নিজের জীবনের অনেক অজানা কথা তুলে ধরেন সবার সামনে। তিনি জানান তাদের সময়কালে মানসিক স্বাস্থ্য ব্যাপারটা ছিল না।

Advertisement

তিনি জানান তিনি যখন শুরুর দিকে অভিনয় জগতে প্রবেশ করেছিলেন তখন বড় বড় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের অভিনয় দেখার জন্য পরিচালকদের পা পর্যন্ত ধরতে হতো। কারণ তখন অভিনয় শেখার ওই একটাই রাস্তা ছিল। এভাবেই বড় বড় অভিনেতা অভিনেত্রীদের অভিনয়ের ধরন দেখে দেখেই অভিনয় শিখতেন তারা।

Advertisement

আরো জানান যে একবার পরিচালক জ্ঞানেশ মুখোপাধ্যায় তাকে চর মারতে গিয়েছিলেন। পরিচালক জ্ঞানেশ মুখোপাধ্যায়ের ‘ফেরারি ফৌজ’ নাটকের প্রধান চরিত্রে ছিলেন তিনি। একদিন নাটকের রিহার্সেল করার সময় তার হাত থেকে ঘড়ি খুলে পড়ে যাওয়ায় তিনি রিহার্সাল থামিয়ে সেটা তুলতে গিয়েছিলেন। এরপরই জ্ঞানের মুখোপাধ্যায় তাকে ডেকে বলেন ‘টেনে গালে এক চড় মারবো। অভিনয় করার সময় অভিনয় ছাড়া যেন অন্য কোন দিকে মন না যায়’।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button