তবে কী এবার গ্যাস সিলিন্ডারে ভর্তুকি পুরোপুরি ভাবে বন্ধ করে দিতে চলেছে সরকার? জানুন বিস্তারিত

 

Advertisement

ভারতের আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া পরিবারগুলো ছাড়া বাকি সকলকে দেওয়া এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারে ভর্তুকি দেওয়া বন্ধ করে দিতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। সম্প্রতি গ্যাস সিলিন্ডারে ভর্তুকি নিয়ে সমীক্ষা চালাচ্ছে সরকার। সরকারের তরফ থেকে জানা গিয়েছে যে, সমস্ত রকম আর্থিক সিদ্ধান্ত ভবিষ্যতের কথা চিন্তা ভাবনা করেই নেওয়া উচিত।

Advertisement

গত বছরের তুলনায় চলতি বছর পেট্রোলিয়াম প্রোডাক্টস এর উপর দেওয়া সাবসিডি ৯২ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। গত আর্থিক বছর ২০২০-২১ এর প্রথম চার মাসের সাবসিডি ১৬৪৬১ কোটি টাকা ছিল যা চলতি আর্থিক বছর ২০২১-২২ এর প্রথম চার মাসে হয়েছে ১২৩৩ কোটি টাকা।

Advertisement

সূত্রের খবর অনুযায়ী একটি ইন্টারনাল অ্যাসেসমেন্ট স্বরূপ ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে যে আগামী কিছুদিনের মধ্যে গ্রাহকদের প্রতি সিলিন্ডার প্রতি ১০০০ টাকা পর্যন্ত দিতে হতে পারে। এলপিজি সংক্রান্ত সাবসিটি নিয়ে সরকারের তরফ থেকে একাধিকবার এ নিয়ে পর্যালোচনা হয়েছে কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোনো সঠিক যোজনা তৈরি করা হয়নি।

Advertisement

বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে দুটি বিকল্প পথ রয়েছে। বর্তমানে বার্ষিক ১০ লক্ষ টাকা আয় করা পরিবারকে সাবসিটি দেওয়া হবে না এবং উজ্জ্বলা যোজনা অন্তর্ভুক্ত সুবিধাভোগীরা সাবসিডি সুযোগ-সুবিধা পাবেন। উজ্জ্বলা যোজনায় প্রধানমন্ত্রী দারিদ্র সীমার নিচে থাকা পরিবারকে বিনামুল্যে এলপিজি কালেকশন দেওয়ার ব্যবস্থা শুরু করেছিলেন।

Advertisement

সাবসিডি একটি ডিবিটি স্কিম যা ২০১৫ সালে চালু করা হয়। এই স্কিমে গ্রাহকদের পুরো টাকা দিয়ে সিলেন্ডার নিতে হয় এবং সরকারের তরফ থেকে ভর্তুকির টাকা সরাসরি গ্রাহকদের ব্যাংক একাউন্টে রিফান্ড করে দেওয়া হয়।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button