‘নিজের রোজগার বাড়ান’-পেট্রোলের দাম নিয়ে প্রশ্ন করতেই মেজাজ হারালেন যোগগুরু রামদেব

২০১৪ সালের আগে কেন্দ্রে কংগ্রেসের সরকার থাকাকালীন পেট্রোপণ্যের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে আক্রমণাত্মক ছিলেন বিখ্যাত যোগগুরু বাবা রামদেব। তৎকালীন শাসক দল ও সেসময়ের বিরোধী দল বিজেপির সঙ্গে রাস্তায় নেমে মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ করেছিলেন রামদেব‌। তবে কেন্দ্রে পালাবদল হতেই মেজাজ বদলে গিয়েছে রামদেবের। ফলে বর্তমান পেট্রোপণ্যের দাম বাড়ানো নিয়ে প্রতিবাদ করা তো দূরের কথা সে নিয়ে প্রশ্ন করলেই রীতিমতো রেগে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠছেন যোগগুরু।

Advertisement

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে তার পরামর্শ,”অসুবিধা হলে বেশি করে কাজ করুন এবং নিজের রোজগার বাড়ান।” বলে রাখা দরকার,২০১৪ সালে কেন্দ্রের শাসক দলের ভূমিকায় বিজেপি আসার পূর্বে একটি সাংবাদিক সাক্ষাৎকারে রামদেব বলেছিলেন,মোদি সরকার ক্ষমতায় আসলে পেট্রোলের দাম লিটার প্রতি ৪০ টাকায় নামবে। কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি কি হলো? সাংবাদিকের এই প্রশ্ন শুনেই মেজাজ হারালেন যোগগুরু।

Advertisement

উত্তরে ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি বলেন,”হ্যাঁ তখন আমি বলেছিলাম দাম কমবে। তাতে হয়েছে টা কী? আমাকে বারবার এসব প্রশ্ন করবেন না। এসব প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার ঠিকা নিয়ে বসে নেই আমি।” এরপর কিছুটা নরম সুরে তিনি বলেন,”সরকার বলছে জ্বালানির দাম যদি কম হয়,তাহলে ওরা কর পাবেনা। কর না পেলে দেশ চলবে কি করে? বেতন দেবে কি করে? রাস্তাঘাট তৈরি করবে কি করে?

Advertisement

হ্যাঁ আমিও মনে করি মুদ্রাস্ফীতি কমানো উচিত। কিন্তু সেই সঙ্গে মানুষের উচিত আরো পরিশ্রম করা। এমনকি আমিও ভোর ৪ টেয় ঘুম থেকে উঠে রাত ১০ টা অব্দি কাজ করি।” তার কথায়,তিনি যদি সন্ন্যাসী হয়ে ১৮ ঘন্টা কাজ করতে পারেন তাহলে আপনারা কেন পারবেন না?

Advertisement

প্রসঙ্গত,গত ১০ দিনে হুঁ হুঁ করে বেড়ে চলেছে জ্বালানির দাম। গত ১০ দিনে মোট ৯ বার বেড়েছে পেট্রোলের দাম। ইতিমধ্যে কলকাতায় সেঞ্চুরি হাঁকাতে চলেছে ডিজেল। পেট্রোলের দাম ও ১১০ টাকা। তার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে গ্যাসের দাম। ফলে সবদিক থেকেই পকেটে টান ধরেছে আমজনতার। ইতিমধ্যে দেশজুড়ে শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ দিয়েছেন বিরোধী দলগুলি।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button