পোস্ট অফিসের এই সেভিংস স্কিমে মাসে ১০,০০০ টাকার বিনিয়োগে পেয়ে যান ১৬ লক্ষ টাকা রিটার্ন

বর্তমানে পোস্ট অফিস এর বিভিন্ন স্কিমে বিনিয়োগই এই মুহূর্তে সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য এবং নিরাপদ একটি উপায়। বিশেষ করে সাধারন মানুষ এই স্কিম গুলিতে বিনিয়োগ করে বিশেষ ভাবে লাভবান হন। যারা মার্কেটের ঝুঁকি একদমই বহন করতে চান না তাদের জন্য ইন্ডিয়া পোস্ট বেশ কয়েকটি অফার নিয়ে এসেছে। ভারতের মধ্যবিত্ত নাগরিকদের জন্য ফিক্সট রেট ইন্টারেস্টে এই স্কিম দুর্দান্ত রিটার্ন দেবে।

Advertisement

বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি ব্যাঙ্কে ফিক্স ডিপোজিট বা সেভিংস একাউন্টে অর্থ বিনিয়োগ করার বদলে পোস্ট অফিসের এই স্কিম একটি বিকল্প স্কিম। নির্দিষ্টভাবে বললে পোস্ট অফিস রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট এর মাধ্যমে আমাদের অর্থ বিনিয়োগ করার দুর্দান্ত সুযোগ নিয়ে এসেছে এই স্কিম।

Advertisement

এই স্কিমে বিনিয়োগ এর ফলে আমাদের সময় এবং অর্থের পাশাপাশি সুদের হার ও নিরাপদ ও সুরক্ষিত থাকবে। পাশাপাশি মার্কেটের কোনরূপ ঝুঁকি নেই এতে। যারা নিয়মিত অর্থ বিনিয়োগ করে হাই রিটার্ন পেতে চান তারা পোস্ট অফিসে রেকারিং ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

Advertisement

বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি ব্যাঙ্কের চেয়ে বেশি শতাংশ ইন্টারেস্ট প্রদান করে এই স্কিম। এর আরো একটি ভালো দিক হলো আপনি চাইলে ন্যূনতম ১০০ টাকা দিয়ে পোস্ট অফিসের রেকারিং একাউন্ট খুলতে পারবেন। এছাড়া এতে নেই কোনো সর্বোচ্চ বিনিয়োগের উচ্চ সীমা।

Advertisement

বর্তমানে বিনিয়োগকারীদের কাছে এই স্কিমটি খুবই জনপ্রিয় একটি স্কিম। এটি প্রায় ৫.৮ শতাংশ বার্ষিক সুদ ধার্য করে। যা ১ এপ্রিল ২০২০ সালে শেষবার কার্যকর করা হয়েছিল। তবে কেন্দ্রীয় সরকার প্রতি ৩ মাস অন্তর এই স্কিম গুলির সুদের হার নির্ধারণ করে।

Advertisement

আমরা যদি বার্ষিক ৫.৮ শতাংশ সুদে প্রতিমাসে ১০,০০০ টাকা বিনিয়োগ করি তবে ১০ বছরে ইন্টারেস্ট সমেত পাবো প্রায় ১৬ লক্ষ টাকা রিটার্ন। তবে এই স্কিমের কিছু কিছু বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কেউ যদি একমাস এর পেমেন্ট মিস করেন তবে তার জন্য এক শতাংশ হারে জরিমানা দিতে হবে। তবে কেউ যদি পরপর ৪ মাস পেমেন্ট মিস করেন তবে অ্যাকাউন্টটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে। তবে অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররা ডিফল্ট তারিখ থেকে ২ মাসের মধ্যে অ্যাকাউন্টটি পুনরুদ্ধার করতে পারবেন।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button