একসময় ঘর থেকে বের করে দিতেন প্রসেনজিৎ ও তাপস পাল,মুখ খুললেন অঞ্জনা কন্যা চুমকি-রীনা

 

Advertisement

বাংলা ইন্ডাস্ট্রি অন্ধকার থেকে আলোয় এনেছেন অঞ্জন চৌধুরী। অঞ্জন চৌধুরীর দুই মেয়ে চুমকি এবং রীনা। তার হাত ধরে বহু নামি অভিনেতারা সিনেমা জগতে প্রবেশ করেছিলেন। কিছুদিন আগেই মৈনাক ভৌমিক পরিচালিত ছবি ‘একান্নবর্তী’ তে একটি সংলাপের মাধ্যমে বিদ্রুপ করা হয়েছিল অঞ্জন চৌধুরী কে। সোশ্যাল মিডিয়াতে এর প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন রীনা।

Advertisement

আশি এবং নব্বইয়ের দশক জুড়ে একের পর এক হিট ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছেন অঞ্জন চৌধুরী। তার হাত ধরে উঠে এসেছে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও তাপস পালের মতন বিখ্যাত অভিনেতারা। বাবার হাত ধরে শৈশব থেকেই ফিল্ম জগতের সঙ্গে পরিচয় চুমকি-রীনার। চুমকি একসময় ভালো ভালো ছবিতে কাজ করেছেন। তবে রীনা কে আর অভিনয় জগতে দেখা যায়নি।

Advertisement

স্টার কিড হলেও নেপটিজমে বিশ্বাস করেন না চুমকি-রীনা। তবে তারা দুজনেই বিশ্বাস করেন যে বাবার জন্যই সিনেমা জগতে আসতে পেরেছেন। রীনা জানিয়েছেন তাদের পরিবারে কোনোদিনই নেপটিজম বলে কিছু ছিলনা, আজও নেই। তা না হলে তাদের ভাই সন্দীপ চৌধুরী বাংলা ধারাবাহিকের অন্যতম নামি প্রযোজক এবং পরিচালক। তিনি কখনও নিজের দিদিদের কাস্ট করার কথা ভাবেনি।

Advertisement

প্রসেনজিৎ ও তাপস পালের সঙ্গে খুব বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ছিল তাদের। এমনও হয়েছে তাপস ও প্রসেনজিৎ একসাথে গল্প করলে তাদেরকে ঘর থেকে বের করে দিয়েছেন এবং বলেছেন এসব কথা শুনতে হবে না। বর্তমানে তারকাদের রাজনীতিতে প্রবেশের বিরুদ্ধে চুমকি-রীনা। চুমকির কাছে রাজনীতির প্রস্তাব আসলেও তিনি তা ফিরিয়ে দিয়েছেন।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button