ক্যান্সার জয়ী অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মার কথা শুনে দিদি নং ১ এর সেটে সকলের সামনে কেঁদে ভাসালেন রচনা

 

Advertisement

বাংলা জগতে ছোটপর্দার বেশ জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। সান বাংলার ‘জিয়নকাঠি’ ধারাবাহিকে তার অভিনয় দর্শকের মন জয় করেছিল। বাংলায় বেশ জনপ্রিয় তিনি। এছাড়াও আরও অনেক ধারাবাহিকে তাকে দেখা গেছে। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে অনেকেই জানেন যে বেশ কিছু বছর আগে অভিনেত্রী একবার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিল।

Advertisement

তবে বছর ছয় পর আবার সেই মারণ রোগ তার শরীরে বাসা বাঁধে। তারপরই শুরু হয় তার জীবনে কঠিন লড়াই। তার কঠিন সংগ্রামের কথা তার প্রেমিক সব্যসাচী নিয়মিত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করতেন।

Advertisement

গতবছর ফেব্রুয়ারি মাসেই তিনি জানতে পারেন যে তার শরীরে মারণ রোগ বাসা বেঁধেছে। তারপরই দিল্লির একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান। দিদি নং ১ এসে নিজের জীবনের কথা বলতে গিয়ে কেদে ফেলেন তিনি। তিনি জানান ডক্টর তাকে দেখে বলেন যে অপারেশনের পর নাও বাঁচতে পারেন তিনি। সব শুনেই তৎক্ষণাৎ অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

Advertisement

অপারেশনের পর তার মনে হয়েছিল যে তিনি সত্যিই বেচেঁ আছে কিনা। তার এই স্ট্রাগল এর কথা শুনে দিদি নং ১ সেটে উপস্থিত প্রায় সকলেই কেদে ফেলেছিলেন। তবে এত কিছুর মধ্যেই তার প্রেমিক সব্যসাচী কিভাবে তার পাশে থেকেছিল সেকথা জানতেও ভোলেননি তিনি। তিনি একথাও জানান যে একদিন কেমোর পর চোখ খুলে তিনি সামনে সব্যসাচী কে দেখতে পান। তাকে দেখেই অদ্ভুত এক শান্তি অনুভূত হয়েছিল তার।

Advertisement

তিনি আরও বলেন অসহ্য শারীরিক কষ্ট হলেও এই পরিস্থিতিতে মানসিক কষ্ট একদমই হয়নি তার। তার বাড়ির লোক এবং তার কাছের বন্ধু সব্যসাচী প্রাণপণে তার পাশে থাকার চেষ্টা করেছেন। তিনি জানান যে আবার ক্যামেরার সামনে দাড়াবেন তিনি। আবার কাজ করবেন এবং অনবদ্য অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকের মন জয় করবেন।

Advertisement

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button