তথ্যপ্রযুক্তি

‘শ্বাসরুদ্ধকর সাত মিনিট’ মঙ্গল গ্রহের প্রথম শব্দ রেকর্ড!!

 

Advertisement

 

Advertisement

 

Advertisement

 

Advertisement

গত বৃহস্পতিবার নাসার নতুন রোভার পারসিভেরেন্স এর ধারণ করা এক ভিডিওতে রোভারটি তার সফল অবতরনের প্রমাণ জানান দিয়েছে। মঙ্গলগ্রহ থেকে পারসিভেরেন্সের পাঠানো একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।

Advertisement

মঙ্গলবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, মঙ্গলগ্রহে সফলভাবে অবতরণের পর থেকেই সেখানকার ছবি পাঠাতে শুরু করে পারসিভেরেন্স। নতুন ভিডিও থেকে লাল গ্রহের দৃশ্য ও শব্দ সম্পর্ক আরও ভাল ধারণা পাওয়া যায়।

Advertisement

মঙ্গলপৃষ্ঠের অবতরণের শেষ সাত মিনিটকে ‘শ্বাসরুদ্ধকর সাত মিনিট’ উল্লেখ করেছে নাসা। পারসিভেরেন্সের গায়ে লাগানো ক্যামেরাগুলোতে প্রথমবারের মতো কোনও মহাকাশযানের মঙ্গল গ্রহে অবতরণের দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে।

Advertisement

রোভারটি মার্শিয়ান বায়ুমণ্ডলে প্রবেশের ২৩০ সেকেন্ড পরে ভিডিও শুরু হয়। রোভার থেকে একটি প্যারাসুট মার্শিয়ান পৃষ্ঠের সাত মাইল উপর থেকে নিচে অবতরণ করে।

Advertisement

রোভারে থাকা একটি মাইক্রোফোনে মঙ্গল গ্রহের প্রথম শব্দ রেকর্ড করা হয়। কয়েক সেকেন্ডের ওই অডিওতে মার্শিয়ান বায়ুমন্ডলের বাতাসের শব্দ শোনা যায় এবং রোভারটি পৃষ্ঠের উপরে পৌঁছালে এটির অপারেটিংয়ের শব্দ শুনতে পাওয়া যায়।

Advertisement

নাসার প্রকাশ করা ভিডিওতে লালগ্রহের মাটির ছবি দেখা গেছে। মঙ্গলের পৃষ্ঠে যে গর্ত রয়েছে সেটিও ভিডিওতে ধরা পড়েছে। মাটিতে অবতরণের সময় যে ধুলো উড়েছিল সেটিও ভিডিওতে দেখা গেছে এবং ঠিক তখনই মাইক্রোফোনে বাতাসের শব্দ ধরা পড়ে।

Advertisement

তবে,নাসা জানায়, মাইক্রোফোনে তেমন কোনো ‘ব্যবহারযোগ্য ডেটা’ ধারণ করা হয়নি। রোভারের টুইটার অ্যাকাউন্টে অডিওটিও পোস্ট করা হয়েছে। টুইটে বলা হয়েছে,‘আপনারা আগে মঙ্গল দেখেছেন, এখন শুনুন। হেডফোন নিন এবং মাইক্রোফোনে ধারণ করা প্রথম শব্দগুলো শুনুন।’

Advertisement
Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button