রাশিফল

জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী কোন রাশির নারী কেমন স্বভাবের জেনে নিন

 

Advertisement

সৃষ্টির আদিকাল হতেই নারীর প্রতি পুরুষের আকর্ষণের এক অজানা কারন রয়েছে। এবং এই অজানা এক আকর্ষণের কারনেই নারী ও পুরুষ ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে জড়াতে চায়। যদি স্বভাব চরিত্রের মেলবন্ধন তাদের মধ্যে না হয়ে ওঠে তবে শুরু হয় সমস্যা। তাই জেনে নিন কোন রাশির জাতিকা জ্যোতিষশাস্ত্র মতে কেমন ধরনের হতে পারে ?

Advertisement

মেষ রাশি – এই রাশির জাতিকারা সাধারনত ঘরোয়া প্রকৃতির হয়ে থাকেন। এনারা অতিরিক্ত দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে বেশি ভালোবাসেন। কিন্তু মাঝে মাঝে এনারা নিজের ক্ষমতার তুলনায় বেশি কাজের ভার নিয়ে ফেলেন এবং পূর্বের কাজ শেষ না করেই নতুন কাজে হাত লাগাতে চান। কোন ভাল কাজ করার সুযোগ পেলে এনারা খুব তাড়াতাড়ি সেটি করে ফেলেন। সেই কাজের ক্ষেত্রে কতখানি লাভ হল তা নির্দিষ্ট করে লক্ষ করেন না। জীবনের ব্যাপারে আশাবাদী চিন্তাধারা করে থাকেন এনারা। এই রাশির জাতিকারা খুব তাড়াতাড়ি সফল হন। এই রাশির নারীরা নিজে উদ্যোগ নিয়ে থাকতে বেশি পছন্দ করেন। কিন্তু তার সঙ্গীকে শক্তিশালী ব্যক্তিত্বের অধিকারী হওয়ার প্রয়োজন। নয়তো খুব দ্রুত আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন তারা। এনাদের সাথে তর্ক বাঁধলে বিচলিত হওয়ার কারণ নেই বরং সম্পর্ক আরো দৃঢ় হওয়ার সংকেত রয়েছে।

Advertisement

বৃষ রাশি – এই রাশির জাতিকারা শান্তশিষ্ট হয়ে থাকেন। সাধারণত এনারা মিষ্টি আচরণ করে থাকেন কিন্তু রেগে গেলে এনারা তেমনি ভয়ানক হয়ে উঠতে পারেন। এনাদের আগুনে মেজাজ এর কারণে অনেকে আবার ভয়ের দৃষ্টিতে দেখে থাকেন।তবে এনারা ছোট ছোট উপহার পেতে খুবই পছন্দ করেন। মানসিক দিক থেকে এনারা যথেষ্ট কঠোর। কোন কিছু পাওয়ার জন্য এনারা যথেষ্ট পরিশ্রম করেন। তবে যতোই কঠোর স্বভাবের হোন না কেন এনারা মমতাময়ী হয়ে থাকেন। এনারা যথেষ্ট ধৈর্যশীল এনাদের মাঝে মাতৃসুলভ আচরণ দেখা যায়। এনারা নিরাপত্তা অনুভূতি পেতে বেশি পছন্দ করেন। এনারা সবার সাথে আন্তরিক অনুভূতি রাখেন। একটু সময় নিয়ে এনারা সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তবে কিছু সীমানা মেনে রাখেন।

Advertisement

মিথুন রাশি – এই রাশির জাতিকাদের বুঝে উঠা বেশ শক্ত। এনারা নির্দিষ্ট একটি স্বভাবের নন। এনাদের মাঝে রয়েছে বহু নারীর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য। কেউ কেউ আবার এনাদের চরিত্রের প্রতি বিরক্ত বোধ করেন। এনাদের মনের মাঝে পরিবর্তন খুব তাৎক্ষণাৎ আসে। কোন কিছু জানার বিষয় কৌতূহলের অন্ত নেই এনাদের। সৃজনশীলতার উপলব্ধি রয়েছে এনাদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যে। আশাবাদী প্রকৃতির হওয়ার কারণে সর্বত্র মানিয়ে নিতে পারেন।প্রেমের ক্ষেত্রে এনারা একটু খুঁতখুঁতে স্বভাবের। তবে নিজের ঈশ্বর সম ব্যক্তিকে খুঁজে পেলে অনুভূতি প্রকাশ করেন। ইনাদের সাথে সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী।

Advertisement

কর্কট- এনারা যথেষ্ট সহজ-সরল শান্তি প্রিয়। তবে অনুভূতি অনেক জটিল খুবই স্পর্শ কাতর স্বভাবের।সবগুলো রাশির মাঝে কর্কট নারীর বৈশিষ্ট্য নির্ণয় করা সবচাইতে ক’ঠিন।হুট করে তারা প্রেমে জড়িয়ে পড়তে নারাজ।বিশেষ করে কর্কট নারীকে সমালোচনা করার ব্যাপারে খুব সাবধান। অন্যের প্রতি বিশ্বাস রাখেন। সঙ্গীকে বিশ্বাস করতে সময় নেন। পরবর্তী পর্যায়ে সম্পর্ক অনেক মিষ্টি হয়ে ওঠে।কোনও ব্যক্তির ব্যাপারে খুব কম জে নেও সে আসলে ভালো না খারাপ তা ধারনা করে নিতে পারে কর্কট নারী এবং এই ধারনা সাধারণত ঠিক হয়ে থাকে।

Advertisement

সিংহ- এনাদের মাঝে সিংহের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য লক্ষ্য করা যায়। প্রেমের ক্ষেত্রে এই রাশির নারী কোনও রকমের ছাড় দিতে রাজী হন না।আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে থাকেন।সঙ্গীকে তার প্রাপ্য গুরুত্ব দিতেও পেছোন না। তারা যেমন বুদ্ধিমতী হয়ে থাকেন, তেমনি শক্তিশালী চরিত্র এবং সৃজনশীলতা দেখা যায় তাদের মাঝে।সঙ্গীর জীবনে তিনি হয়ে থাকতে চান সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। খুশি করতে পারলে আপনার সম্পর্ক হয়ে উঠতে পারে প্রেমের গল্পের মতই রোমান্টিক এবং একই সাথে ড্রামাটিক।

Advertisement

কন্যা – অনেকেই শান্তশিষ্ট আবার কেউ ভয়ানকভাবে অগোছালো।নিজেকে আরও উন্নত করে তুলতে গিয়ে তারা জীবনকে জটিল করে ফেলেন অনেক সময়ে।কন্যা রাশির নারীর মাঝে নিজেকে ‘নিখুঁত” করে গড়ে তোলার প্রবণতা দেখা যায়।সময়ের কাজ সময়ে করতে ভালোবাসেন তিনি।মাঝে দেখা যায় একটু লাজুক বৈশিষ্ট্য।ভালোবাসার নামে ভুলেও তার হৃদয় নিয়ে খেলা করতে যাবেন না। প্রেমের ক্ষেত্রে কন্যার মাঝে দেখা যায় প্রচ্ছন্ন সংকল্প এবং শক্তি।

Advertisement

তুলা – তুলা নারীর প্রতি অন্যদের আকর্ষণ থাকে প্রবল।চরিত্রেও দেখা যায় সমতা।যৌক্তিক বিবেচনা এবং অযৌক্তিক আবেগ লক্ষিত হয় এনাদের মাঝে। যুক্তি দিয়ে যে কোনও কিছু তাকে বোঝাতে পারবেন আপনি।এরা অন্যদের সাথে ভালো মিশতে পারে। তারা যেমন বুদ্ধিমতী হয়ে থাকেন, তেমনি শক্তিশালী চরিত্র।একটু সময় নিয়ে এনারা সম্পর্ক গড়ে তোলেন।তুলা রাশির নারী সৌন্দর্য, ন্যায় এবং ভারসাম্যের প্রতীক।

Advertisement

বৃশ্চিক – একদম সোজাসাপটা আচরণ পছন্দ করেন তিনি। আত্মবিশ্বাসী, শক্তিশালী বৃশ্চিক নারীদের প্রকৃতি।তাদের মনের ভেতরটা অনেক জটিল।চুম্বকের মতো আকর্ষণে আপনাকে জড়িয়ে ফেলতে পারেন।পরিস্থিতি নিজের নিয়ন্ত্রনে রাখতে পছন্দ করেন তারা। জটিলতার রহস্য সবাইকে জানাতেও ইচ্ছুক না তারা।সবকিছু মিলিয়ে চা’পা একটি সৌন্দর্য রয়েছে তাদের ব্যক্তিত্বে।কখনও কখনও নিজে’র ক্ষতি করে বসেন। কখনও হালকাভাবে নেবেন না বৃশ্চিক নারীকে। এনারা যে মুহূর্তেই প্রশান্ত আবার মু’হূর্তেই উত্তাল।

Advertisement

ধনু- সব অভিজ্ঞতাকেই তিনি মূল্যবান বলে মনে করেন।এই নারীর গভীর ব্যক্তিত্ব অনেকের কাছেই আকর্ষণীয়।খুব স্বতঃস্ফূর্ত এবং স্বাধীনচেতনা।কোনও বাঁধাধরা নিয়মের বেড়াজালে আটকাতে যাবেন না বৃশ্চিক নারীকে।নিজে’র জীবনের সার্থকতা খুঁজে বেড়ান তিনি।বেশ দয়ালু ধরনের হয়ে থাকেন।ভালোবাসার নামে ভুলেও তার হৃদয় নিয়ে খেলা করতে যাবেন না।

Advertisement

মকর -খুবই স্পর্শ কাতর স্বভাবের।মাথা ঠাণ্ডা রেখেই নিজে’র প্রতিযোগীকে পিষে ফেলেন পায়ের নিচে।ইচ্ছেপূরণের বিরোধীতা করবেন না।সাফল্য অর্জন করার পথে কোনও বাধাই সহ্য করেন না তিনি।খুব সহজে নিজের মেজাজ খারাপ করেন না তিনি।অন্যের দেওয়া উপদেশ মেনে চলতে পছন্দ করেন না।কখনও হালকাভাবে নেবেন না এনাদের।তারা যেমন বুদ্ধিমতী হয়ে থাকেন, তেমনি শক্তিশালী চরিত্র।

Advertisement

কুম্ভ রাশি – এনারা খুবই খোলামন স্বভাবের এনাদের এক স্থানে আটকে রাখা অসম্ভব। ইতিবাচক প্রকৃতির হয়ে থাকেন এনারা। এরা অন্যের ধারণাকে ভুল প্রমাণিত করে এগিয়ে যেতে বেশি পছন্দ করেন। এনাদের প্রকৃতি বাতাসের মতোই পরিবর্তনশীল এনারা সমাজসেবী হয়ে থাকেন ইতিবাচক মনোভাব রাখতে বেশি পছন্দ করেন। অন্যের দেওয়া উপদেশ মেনে চলতে পছন্দ করেন না। ভ্রমণ করতে বেশি পছন্দ করেন। বুদ্ধিমত্তার দিক থেকে এনারা অসাধারণ। অন্যের প্রয়োজনে সাহায্য করতে পছন্দ করেন। নতুন ছোট ছোট উপহার এনারা পছন্দ করেন।

Advertisement

মীন রাশি – এনাদের গভীর আধ্যাত্মিক মানসিকতা রয়েছে। ইনারা অনেক রহস্য লুকিয়ে রাখতে পছন্দ করেন। নিজের ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করতে পছন্দ করেন না এনারা। স্পর্শকাত্তর, আবেগী, মন কাউকে বুঝতে দেন না। খুবই দয়ালু প্রকৃতির হয়ে থাকেন এনারা। স্বপ্ন দেখতে বেশি পছন্দ করেন সমস্ত কিছুর মধ্যে লুকিয়ে থাকা অর্থ বেশ তাড়াতাড়ি বের করে ফেলেন এনারা। বেশ দয়ালু ধরনের হয়ে থাকেন। বাস্তব যখন কঠিন হয়ে পড়ে তখন সহজেই কল্পনায় হারিয়ে যান এবং নিজের দুঃখকে আটকে রাখেন।

Advertisement
Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button