খবর

‘অসমে ১৫ ই আগস্টের মধ্যে নেওয়া হবে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক’-ঘোষনা করলেন অসমের শিক্ষামন্ত্রী

 

Advertisement

কদিন আগে কেন্দ্রীয় বোর্ডের সাথে বৈঠক করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সিবিএসসি ও আইসিএসসির দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয়। তার দুই দিন পরেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক নিয়ে জনমতের আবেদন জানান।

Advertisement

সেই মোতাবেক ইমেইলের মাধ্যমে বেশিরভাগ মানুষই পরীক্ষা না হওয়ার রায় দেন। ফলে নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠকের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন যে এবছর রাজ্যের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করা হলো এবং মূল্যায়নের বিষয়টা আগামী সাতদিনের মধ্যে জানানো হবে বলে জানান তিনি।

Advertisement

ঠিক একই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে আসামে। করোনা পরিস্থিতিতে কীভাবে পরীক্ষা সম্ভব তা নিয়ে আসামের দিসপুরে একটি বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সেই বৈঠকে উপস্থিত হন আসামের শিক্ষা দপ্তর ও স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকরা। বৈঠকের পর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

Advertisement

দিন দিন আসামেও মাথাচাড়া দিচ্ছে করোনা সংক্রমন। এখনো পর্যন্ত সে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লক্ষ ২৪ হাজার ৩৮৫ জন মানুষ এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ লক্ষ ৬৮ হাজার ৯৮১ জন।

Advertisement

আসামে মোট মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অন্তর্গত পরীক্ষা কেন্দ্র রয়েছে ৮০০ টি। সেখানকার ছাত্র সংগঠন দাবি করেছে যে শুধুমাত্র আবশ্যিক বিষয় গুলির পরীক্ষা নেওয়া হোক অথবা পরীক্ষা ছাড়াও ছাত্র-ছাত্রীদের উত্তীর্ণ করা যেতে পারে। এনিয়ে অসমের শিক্ষামন্ত্রী জানান,’পরীক্ষা না নিয়ে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ করে দেওয়ার ক্ষমতা তাদের নেই। শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা অবশ্যই নেওয়া প্রয়োজন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে আগামী ১৫ ই আগস্টের মধ্যে আসামে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

Advertisement
Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button